এনআইডি কার্ড হারিয়ে গেলে কি করতে হবে?- ঘরে বসে ভোটার আইডি কার্ড রিইস্যু:


এনআইডি কার্ড হারিয়ে গেলে কি করতে হবে?


এনআইডি কার্ড আমাদের খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা জিনিস। কিন্তু অনেক সময় অনেকের ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে যায়। এনআইডি কার্ড হারালে চিন্তার কোন কারন নাই ভোটার আইডি কার্ড হারালে তার রিইস্যু করে পুনরায় এনআইডি কার্ড উত্তোলন করা যায়। 


আপনাকে হারিয়ে যাওয়া এনআইডি কার্ড উত্তোলনের জন্য মোটা অঙ্কের টাকা খরচ করতে হবে না। অনেকেই হারানো ভোটার আইডি কার্ড পুনরায় পাওয়ার জন্য ভুল পরামর্শ দিতে পারে ।ভোটার আইডি কার্ডের মত গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হারালে ওই ব্যক্তির দুশ্চিন্তায় পড়ে ।ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে পুনরায় আবার তা উত্তোলনের উপায় খুঁজতে হবে। চিন্তার কোন কারণ নেই ।এনআইডি কার্ড হারিয়ে গেলে কিভাবে তা আবারো উত্তোলন করতে পারবেন তা নিয়ে বিশদ আলোচনা করব ।


নিচের ধাপগুলো অনুসরণ এর মাধ্যমে একজন ব্যক্তি তার হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড কোন ঝামেলা ছাড়াই রি ইস্যু করতে পারবেন ঘরে বসে, কোন প্রকার টাকা পয়সা ছাড়াই। আপনার হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড পেতে নিচের লেখাটা মনোযোগ দিয়ে পড়ুন:-


 ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে কি করতে হবে তা এক নজরে দেখে নেয়া যাক:-


  • ভোটার ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে সর্বপ্রথম থানায় গিয়ে জিডি করতে হবে।
  •  এনআইডি কার্ড রিইস্যুর আবেদন করতে হবে।
  • ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের ফরম পূরণ করতে হবে।
  • রকেট বা বিকাশ এর মাধ্যমে নির্ধারিত ফি পরিশোধ করতে হবে।
  • অনলাইনে আবেদনের জন্য রিইস্যুর আবেদন করতে হবে। 

এনআইডি কার্ড হারিয়ে ফেললে সর্বপ্রথমে আপনাকে যা করতে হবে:-


 এনআইডি কার্ড হারিয়ে গেলে দেরি না করে আপনার নিজ থানাতে জিডি করা হবে আপনার ভোটার আইডি কার্ডে রিইস্যুর প্রথম ধাপ। জিডির কপিতে অবশ্যই আপনার এনআইডি কার্ড /ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার নির্ভুলভাবে থাকতে হবে। যদি ভোটার আইডি কার্ডের নম্বর কোন কারণে মুখস্ত না থাকে বা ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি না থাকে তাহলে যার এনআইডি হারিয়ে গেছে, হারিয়ে সেই ভোটারের ভোটার নম্বর জিডিতে উল্লেখ করতে হবে ।


এখন কথা হলো, এই ভোটার নম্বরটি কোথায় পাবেন?


ভোটার তালিকায় প্রত্যেক ভোটারদের ভোটার নম্বর থাকে যা আপনার ওয়ার্ড মেম্বার বা কাউন্সিলরের কাছে অথবা আপনার উপজেলা নির্বাচন অফিসে গেলে ভোটার তালিকা পেয়ে যাবেন । ভোটার নম্বরটি 12 ডিজিটের হয়ে থাকে।


ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে এ পর্যায়ে ভোটার আইডি কার্ডের আবেদন করবেন যেভাবে:-


এনআইডি কার্ড হারিয়ে যাওয়ার পর প্রথম ধাপ হলো থানায় জিডি করা, দ্বিতীয় ধাপ হলো এনআইডি কার্ডের জন্য আবেদন করা।


হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড পুনরায় উত্তোলনের জন্য দুই ভাবে আবেদন করা যায় :-১. আপনার উপজেলা বা থানা নির্বাচন অফিসে গিয়ে ,২. ঘরে বসে অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলন করার মাধ্যমে।


১.সরাসরি নির্বাচন অফিসে গিয়ে যেভাবে হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করবেন :-


আপনার উপজেলা বা থানা নির্বাচন অফিস গিয়ে হারানো ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের ফরম সংগ্রহ করে, ফরম ভালোভাবে পূরণ করতে হবে ।পরের ধাপে হারানো ভোটার আইডি কার্ড তোলার জন্য নির্ধারিত ফি মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে যেমন, রকেট/ বিকাশ এর মাধ্যমে পরিশোধ করতে হবে। নির্ধারিত ফি পরিশোধের পর ফি জমাদানের রশিদ এবং প্রথম ধাপে করা জিডির কপি পূরণকৃত হারানো ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের ফরম এর সাথে নির্বাচন অফিসে জমা দিতে হবে। হারানো ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলন ফরম এর নিচের অংশ ছিড়ে আবেদনকারীকে অফিস দিয়ে দিবে ।


এভাবে হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলন কার্যক্রম শুরু হবে ।



ঘরে বসে হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলন:


দ্বিতীয় পদ্ধতি হলো,

অনলাইনে ঘরে বসে হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলন করা খুবই সহজ। আপনাকে সর্বপ্রথম বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট services.nidw.gov.bd তে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে,লগইন করতে হবে।


নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে লগইন করার পর রিইস্যু অপশনে যাবেন। অপশনে ক্লিক করলে হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড তোলার আবেদন করতে পারবেন হারানো ভোটার আইডি কার্ড তোলার নির্ধারিত ফি রকেট বা বিকাশ এর মাধ্যমে পরিশোধ করার পর আবেদন দাখিল করবেন।





হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের আবেদন সাবমিট করার পর আবেদনের একটি পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করা যাবে। আবেদনটি প্রিন্ট করে এক কপি নিজের কাছে রেখে দিবেন। অনলাইনে আবেদন করলেও পরে অফিসে আবেদন কপিটি নিয়ে গিয়ে খোঁজ নিতে পারবেন । 



ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে অনলাইনে হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের আবেদন পুনর্মুদ্রণ এর কারণ হিসেবে যে অপশন গুলো আসে সেখানে হারিয়ে গেছে সিলেক্ট না করে ঠিকানা পরিবর্তন সিলেক্ট করে ভোটার আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করা যায়। যারা ভোটার এলাকা পরিবর্তন করেছে তাদের জন্য এই নিয়ম। 



ভোটার আইডির জন্য আবেদনে যদি পুনর্মুদ্রণ  কারণে ঠিকানা পরিবর্তন সিলেক্ট করেন সেক্ষেত্রে আবেদনের সাথে যে কোনো তথ্য বা জিডির কপি দেওয়ার প্রয়োজন নাই, শুধু ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের ফি জমা দিলে ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের আবেদন দাখিল করা যায়।



এনআইডি কার্ড হারিয়ে গেলে সে ক্ষেত্রেও ঠিকানা পরিবর্তন সিলেক্ট করে ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের আবেদন করতে পারেন হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের আবেদন সাবমিট করার পর গৃহীত হলে, আবেদনকারীর দেওয়া মোবাইল নম্বরে একটি মেসেজ আসবে । ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলন আবেদন গৃহীত হওয়ার ৩-৫  কর্মদিবসের মধ্যে আপনার উপজেলা বা থানা নির্বাচন অফিস থেকে আপনার এনআইডি কার্ড সংগ্রহ করতে পারবেন।



হারানো এনআইডি কার্ড উত্তোলনের আবেদন অনুমোদিত হওয়ার সাথে সাথে অনলাইনে লগইন করা যায় এবং সেখান থেকে এনআইডি কার্ডের পিডিএফ কপি ডাউনলোড অপশনে গিয়ে ডাউনলোড করা যায়। ভোটার আইডি কার্ডের পিডিএফ ডাউনলোড করে আপনি সংরক্ষণ করতে পারবেন আপনার প্রয়োজনে ভোটার আইডি কার্ডটি প্রিন্ট করে লেমিনেটিং করে যেকোন কাজে ব্যবহার করা যাবে ।এনআইডি কার্ডের পিডিএফ সংরক্ষণ করে রাখলে পরবর্তীতে ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে আবার আবেদন করতে হবে না।



মনে রাখবেন, হারিয়ে যাওয়া ভোটার আইডি কার্ড উত্তোলনের আবেদন অনুমোদন পাওয়ার পর যদি উপজেলা নির্বাচন অফিস ভোটার আইডি কার্ডটি প্রিন্ট করে ফেলে, তখন আপনি আর অনলাইন থেকে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন না। তখন আপনাকে সংশ্লিষ্ট উপজেলা বা থানা নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপনার এনআইডি কার্ড সংগ্রহ করা লাগবে । ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে চিন্তায় না পরে আপনাকে উপর্যুক্ত কাজগুলো করতে হবে।



ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে কি করনীয় বা কি করতে হবে তা নিয়ে যদি আপনাদের কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আমাদের নিচে কমেন্ট বক্সে করতে পারেন। আমরা উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব । আর যদি আমাদের লেখা থেকে উপকৃত হন তাহলে আপনাদের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।


What is programming? Which programming language should I learn first?



Post a Comment (0)
Previous Post Next Post